1. admin@crimetalashtv.com : bangla :
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:৪৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
শ্যামনগরে টর্নেডোর আঘাতে লণ্ডভণ্ড শতাধিক ঘর সুন্দরবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড শিশু ধর্ষণের বর্ণনা দিতে চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি র‌্যাব কর্মকর্তা অবশেষে মুখোশধারী মানবতার ফেরিওয়ালা মিল্টন সমাদ্দার গ্রেফতার খুলনায় ১ লাখ ৬৬ হাজার জাল টাকাসহ দুই জনকে আটক করেছে র‌্যাব-৬ শ্যামনগর ডিজিটাল ক্যাটারিং সার্ভিস এর উদ্দোগে পথচারীদের মাঝে বিশুদ্ধ ঠান্ডা পানি বিতরণ। রাত ১টার মধ্যে ৮০ কিমি বেগে ঝড়ের পূর্বাভাস সাতক্ষীরা শ্যামনগরে পেট্রোল বোমার হামলায় আহত ১ সাতক্ষীরায় সড়কের পাশে পিলারের সাথে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু শ্যামনগর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়কে পানি নিষ্কাশনের ড্রেন ও নির্মাণাধীন রাস্তার ভোগান্তিতে শ্যামনগরবাসী

শ্যামনগর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়কে পানি নিষ্কাশনের ড্রেন ও নির্মাণাধীন রাস্তার ভোগান্তিতে শ্যামনগরবাসী

  • Update Time : বুধবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৩৩ Time View

শ্যামনগর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়কে পানি নিষ্কাশনের জন্য দুই কোটি টাকা বরাদ্দে নির্মিত হচ্ছে ড্রেনেজ ব্যবস্থা। অনিয়ম দুর্নীতিতে নির্মিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা জনগণের কোন কল্যাণে আসবে না বলে স্থানীয়দের ধারণা। এমন ভাবে ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে যাহা নির্মিত রাস্তার নিচে পড়ে যাবে তাহলে পানি নিষ্কাশন হবে কিভাবে এই প্রশ্ন এখন জনসাধারণের মুখে মুখে। অপরদিকে কাঁচড়াকাটি মোড় হতে গোপালপুর শহীদ মিনার পর্যন্ত ড্রেন নির্মাণ করতে সৃষ্ট গভীর গর্ত মাটি দিয়ে ভরাট করা হচ্ছে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার আবুল বাশার এর কাছে জানতে চাইলে তিনি প্রতিবেদককে জানান, কাচড়াকাটি মোড় থেকে গোপালপুর শহীদ মিনার পর্যন্ত যেমন রাস্তা ছিল সেরকম রাস্তা নির্মাণ হবে, ১০ ফুট পরিধি রাস্তা নির্মাণ হবে বলে জানান। যার কারণে ট্রেনের পাশে সৃষ্ট গর্ত মাটি দিয়ে ভরাট করা হচ্ছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ অপরিকল্পিতভাবে ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে রাস্তা নির্মাণ করা হলে ড্রেন রাস্তা নিচে পড়ে যাবে তাহলে কিভাবে পানি নিষ্কাশন হবে। এলাকাবাসীর অভিযোগ সরকারি অর্থ তসরুপ করা ছাড়া জনগণের কল্যাণের কথা ভাবা হয়নি। শ্যামনগর বাসস্ট্যান্ড থেকে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়ক অত্যন্ত জন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, এ সড়কে শ্যামনগর উপজেলা পরিষদ, শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, শ্যামনগর উপজেলা প্রাণিসম্পদ, একাধিক বেসরকারি ডায়গনিক সেন্টার, ক্লিনিক ও হাসপাতাল সহ শত শত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।এই সড়কে দৈনিক হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের গাফিলতিতে ধীর গতিতে চলছে নির্মাণাধীন কাজ। রাস্তার দুপাশে বালি ভরাট করার পর পানি না দেওয়ার কারণে প্রচন্ড রৌদ্রতাপে বালিউড়ের মানুষের চোখে মুখে আঘাত করছে। রাস্তার পাশে বালি ফেলার পর পানি না দেওয়ায় এলাকাবাসীর অভিযোগে মাননীয় সংসদ সদস্য এস এম আতাউল হক দোলন ঠিকাদারকে মোবাইল ফোন করে পানি দিয়ে বালি ভিজিয়ে দেওয়া এবং ব্যস্ততম সড়কে রাত্রে কাজ করে দ্রুত কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ প্রদান করেন। এমপি সাহেব ফোন করার পর একদিন মাত্র পানি দিয়ে দায় সেরেছেন ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান।
শ্যামনগর উপজেলা প্রকৌশলী জাকির হোসেন এর কাছে একাধিকবার ফোন করার পরও ফোন রিসিভ করেননি তিনি। প্রকৌশলী জাকির হোসেনের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় শ্যামনগর উপজেলার নির্মাণাধীন কাজগুলো অনিয়ম দুর্নীতির শীর্ষে অবস্থান করছে বলে অভিযোগ আছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 zahidit.Com
Theme Customized By BreakingNews